সময়মতো টাকা শোধ না করলে সুদ গুনতে হবে

0
168

করোনাভাইরাসের কারণে বিধিনিষেধের সময় ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধে যে ছাড় দেওয়া হয়েছিল, তা বাতিল করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ফলে ক্রেডিট কার্ডে নির্ধারিত সময়ের পর বিল পরিশোধে জরিমানা গুনতে হবে গ্রাহকদের। বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস বিভাগ আজ বুধবার এক প্রজ্ঞাপনে এ নির্দেশনা দিয়েছে।

নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী, কোনো গ্রাহক যদি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধ না করেন, তাহলে অপরিশোধিত বিলের ওপর সুদ বা মুনাফা আরোপ হবে নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার পর দিন থেকেই। এ ক্ষেত্রে কোনোভাবেই লেনদেনের তারিখ থেকে সুদ আরোপ করা যাবে না। বিলম্বে পরিশোধিত কোনো বিলের বিপরীতে বিলম্ব ফি একবারের বেশি আদায় করা যাবে না।

করোনার কারণে সরকারের আরোপ করা বিধিনিষেধের সময় ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধ না করলেও বিলম্ব মাশুল আরোপে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় বিল পরিশোধের মেয়াদ, বিলম্ব মাশুল ও সুদসংক্রান্ত বিশেষ সুবিধার নির্দেশনা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে।

একই প্রজ্ঞাপনে মোবাইল আর্থিক সেবায় (এমএফএস) ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি (পিটুপি) লেনদেনের নতুন নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেখানে পিটুপি লেনদেনের সর্বোচ্চ মাসিক সীমা দুই লাখ টাকা বহাল রাখা হয়েছে। এই লেনদেনের খরচ সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ব্যবসায়িক নীতি অনুসারে চলবে। আগে পিটুপি মাসিক লেনদেন সর্বোচ্চ ৭৫ হাজার টাকা ছিল। পাশাপাশি করোনার কারণে ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি টাকা পাঠানোয় নানা ছাড় ছিল। বিকাশ, রকেট, নগদের মতো সেবাগুলোতে প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত পাঠাতে গ্রাহককে কোনো মাশুল দিতে হতো না।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ইতিমধ্যে স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন সাপেক্ষে দোকানপাট ও শপিং মল খোলাসহ গণপরিবহনব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। তাই ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধের মেয়াদ, বিলম্বে পাওনা পরিশোধের মাশুল ও সুদসংক্রান্ত নির্দেশনা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here