Sunday, August 1, 2021
Start Trading
HomeBangladeshনতুন শেয়ারে ফ্লোর থাকবে না

নতুন শেয়ারে ফ্লোর থাকবে না

আগামীতে শেয়ারবাজারে লেনদেনে আসা নতুন কোম্পানির শেয়ারে ফ্লোর প্রাইস সুবিধা না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে স্টক এক্সচেঞ্জকে কমিশন থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

সূত্রটি জানিয়েছে, একটি বিশেষ পরিস্থিতিতে ফ্লোর প্রাইস আরোপ করা হয়। বর্তমান বাজারে ফ্লোর প্রাইসের খুব একটা কার্যকারিতা নেই। বরং কিছু ক্ষেত্রে দেখা গেছে, ফ্লোর প্রাইস লেনদেনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে।

এ কারণে কমিশন ইতিমধ্যে ৯৬টি কোম্পানির ফ্লোর প্রাইস উঠিয়ে নিয়েছে। ফ্লোর প্রাইস উঠিয়ে নেয়ার পর কোম্পানিগুলোর শেয়ার বেশ ভালো লেনদেন হচ্ছে। তাছাড়া এখন বাজার বেশ ভালো রয়েছে। সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে কমিশন নতুন লেনদেনে আসা কোম্পানির শেয়ারে ফ্লোর প্রাইস সুবিধা না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গত বছর দেশে মহামারি করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হলো শেয়ারবাজারে ধস নামে। শেয়ারবাজারে পতন ঠেকাতে গত বছরের ১৯ মার্চ সে সময়ের কমিশন প্রতিটি কোম্পানির শেয়ারের সর্বনিম্ন দাম বেঁধে দিয়ে ফ্লোর প্রাইস নির্ধারণ করে দেয়।

এক বছরেরও বেশি সময় পর নতুন কমিশন প্রথম দফায় চলতি বছরের ৭ এপ্রিল ৬৬টি কোম্পানি থেকে ফ্লোর প্রাইসের (পতনের সর্বনিম্ন সীমা) নির্দেশনা প্রত্যাহার করে নেয়।

ওই কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে- পিপলস লিজিং, আরএন স্পিনিং, বাংলাদেশ সার্ভিস, আইএফআইএস ইসলামিক মিউচুয়াল ফান্ড-১, জাহিন স্পিনিং, রিং শাইন, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, ডিবিএইচ ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ফনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড, নূরানী ডাইং, রিজেন্ট টেক্সটাইল, এসইএমএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ড, ইভিন্স টেক্সটাইল, প্যাসিফিক ডেনিম, মেট্রো স্পিনিং, কাট্টলি টেক্সটাইল, ফার কেমিক্যাল, দেশবন্ধু পলিমার, ইয়াকিন পলিমার, সাফকো স্পিনিং, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, সেন্ট্রাল ফার্মাসিটিক্যালস, বিচ হ্যাচারি, সিনটেক্স ইন্ডাস্ট্রিস, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, হামিদ ফেব্রিক্স, প্রাইম টেক্সটাইল, সায়হাম কটন, বাংলাদেশ বিল্ডিং, গোল্ডেন হার্ভেস্ট, এএফসি এগ্রো, বেঙ্গল উইন্ডোজ, খুলনা প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং, সিলভা ফার্মাসিটিক্যালস, ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিটিক্যালস, আর্গন ডেনিম, কপারটেক, শাশা ডেনিমস, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ, এস্কয়ার নিটিং, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, আইপিডিসি ফাইন্যান্স, ফিনিক্স ফাইন্যান্স, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, রতনপুর স্টিল রি-রোলিং মিলস, কুইন সাউথ টেক্সটাইল, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ওয়াইম্যাক্স ইলেকট্রোড, রূপালী ব্যাংক, সায়হাম টেক্সটাইল, সোনারগাঁ টেক্সটাইল, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, গ্লোবাল হেভি কেমিক্যাল, নাভানা সিএনজি, ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই, ইউনিক হোটেল, স্ট্যান্ডার্ড ইন্সুরেন্স, ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স, উত্তরা ফাইন্যান্স, উসমানিয়া গ্লাস সিট, খুলনা পাওয়ার, নাহি এলমনিয়াম, দুলামিয়া কটন, সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল এবং এম এল ডাইং।

এরপর গত ৩ জুন আরও ৩০ কোম্পানির ফ্লোর প্রাইসের নির্দেশনা তুলে দেয়া হয়। ফ্লোর প্রাইস তুলে দেয়া ৩০ কোম্পানি হলো – রেনউইক যজ্ঞেশ্বর, মুন্নু এগ্রো, বাটা সু, কোহিনুর কেমিক্যাল, নর্দার্ণ জুট, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, ওয়াটা কেমিক্যাল, সোনালী পেপার, এপেক্স ফুটওয়্যার, কেঅ্যান্ডকিউ, বিডি অটোকার্স, স্টাইলক্রাফট, জেমিনি সী ফুড, ইস্টার্ন কেবলস, এপেক্স স্পিনিং, মুন্নু সিরামিক, বঙ্গজ, সিভিও পেট্রোমেকিক্যাল, এটলাস বাংলাদেশ, এপেক্স ট্যানারি, সমতা লেদার, ন্যাশনাল টিউবস, আজিজ পাইপস, সী পার্ল, হাক্কানি পাল্প, ওরিয়ন ইনফিউশন, লিগ্যাসি ফুটওয়্যার, এসকে ট্রিমস, ন্যাশনাল পলিমার এবং ড্যাফোডিল কম্পিউটার্স।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments