শেয়ারবাজারকে আধুনিক করতে পারলো ২৪ ঘন্টা লেনদেন করা সম্ভব: শেখ শামসুদ্দিন

0
223

শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের বিএসইসি কমিশনার অধ্যাপক ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, আমরা সব সময় মনে করেছি যে যদি শেয়ারবাজার তার প্রাথমিক লক্ষ্যগুলো অর্জন করতে চায় সেক্ষেত্রে আধুনিকায়নের বিকল্প কিছু নেই। এ বিষয়টি অবশ্যই থাকতে হবে এবং প্রথম থেকেই আমরা বিষয়টি সব সময় নজর রেখেছি।

আজকের ওএমএস এবং এ ধরনের বিষয় আমরা সব সময় প্রচার করেছি। ‘ফিক্স সার্টিফিকেশন’ ব্যবস্থপনার মাধ্যমে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওএমএস এর সাথে মিলিয়ে কাজ করবে। এই বিষয় অবশ্যই অনেক বড় প্রাপ্তি।

তিনি আরো বলেন, আমরা আরো বেশি কিছু পেতে চাই। যেমনটি হচ্ছে শেয়ারবাজারে লেনদেন হবে ২৪ ঘন্টা, যা সাতদিনই হবে। বর্তমানে ব্যাংকিং লেনদেনের সময়ের উপর বাজারের লেনদেনের সময় নির্ভর করে। সেক্ষেত্রে আমাদেরকে ব্যাংকিং কার্যক্রম শেষ হবার আরো আগে লেনদেন শেষ করতে হয়। যদি আমরা শেয়ারবাজারকে আরও আধুনিক করতে পারি তাহলে আমরা ২৪ ঘন্টা লেনদেন করতে পারব।

বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ডিএসইর ফিক্স সার্টিফিকেশন প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ডিএসইর চেয়ারম্যান মোঃ ইউনুসুর রহমানের সভাপতিত্বে ডিএসইর নিকুঞ্জ ভবনে টেনিং একাডেমিতে বিএসইসি’ষর কমিশনার ড. শেখ শামসুদদিন আহমদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে দুটি প্রতিষ্ঠানকে ফিক্স সার্টিফিকেশন প্রদান করেন৷

বিএসইসি কমিশনার বলেন, শুধু ডিজিটালাইজেশন, বিভিন্ন পণ্য বাড়ানো ও সংস্থার করলেই হবে না, সেই সাথে লেনদেনও বাড়াতে হবে। কারণ লেনদেন বাড়ালে প্রতিষ্ঠান ভালো থাকবে, স্টক এক্সচেঞ্জের শেয়ারহোল্ডারদের ভালো লভ্যাংশ দেয়া যাবে এবং জিডিপিতে শেয়ারবাজারের অবদান বৃদ্ধি পাবে বলে মন্তব্য করেছেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে জিডিপিতে শেয়ারবাজারের অবদান মাত্র ১৮ শতাংশ সেটাকে অন্যান্য দেশের মতো বাড়াতে হবে। ইতোমধ্যে শেয়ারবাজারের উন্নয়নে এডিবি ও বিশ্ব ব্যাংক বেশ কিছু প্রকল্প নিয়ে কাজ করছে।

শামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, এক্ষেত্রে ব্যাংকিং সময় কোন বিষয়ে হবে না। সেই সঙ্গে শুধু দেশে নয় দেশের বাহিরে বসে লেনদেন করা যাবে। এরই ধারাবাহিকতায় ইতোমধ্যে অনলাইন ও ডিজিটাল ভাবে বিও অ্যাকাউন্ট খোলা এবং দেশের বিভিন্ন জেলা, প্রান্তিক পর্যায়ে ও বিদেশে ডিজিটাল বুথ খোলার উদ্যোগ নিয়েছি। এখন পর্যন্ত বেশ কিছু ডিজিটাল বুথ কার্যক্রম শুরু করেছে।

পুঁজিবাজারের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর আগ্রহের বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, খুব শীঘ্রই প্রধানমন্ত্রী দুবাই যাবেন। সেখানে শেয়ারবাজারের উন্নয়নে কি কাজ করা যায়, কিভাবে বিনিয়োগ নিয়ে আসা যায়া সে বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের পরামর্শ জানতে চেয়েছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক সাইফুর রহমান। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম সাইফুর রহমান মজুমদার, প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা মোঃ জিয়াউল করিম, শাকিল রিজভী স্টক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ শাকিল রিজভী এবং ইউনাইটেড ফিনান্সিয়াল ট্রেডিং কোঃ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল আওয়ালসহ ডিএসই ও শাকিল রিজভী স্টক লিঃ এবং ইউনাইটেড ফিনান্সিয়াল ট্রেডিং কোঃ লিঃ এর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ৷

উল্লেখ্য, বিশ্বের অন্যান্য স্টক এক্সচেঞ্জের সাথে সঙ্গতি রেখে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এপিআই (অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রাম ইন্টারফেস) ভিওিক BHOMS চালুর উদ্যোগ গ্রহণ করে৷ সেজন্য ৩৫টি ব্রোকারেজ হাউজ নাসডাক ম্যাচিং ইঞ্জিনে এপিআই সংযোগ নিয়ে নিজস্ব অর্ডার ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে লেনদেন করার জন্য ডিএসইতে আবেদন করে৷

এরই প্রেক্ষিতে বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ডিএসইর নিকুঞ্জ ভবনে ডিএসই, শাকিল রিজভী স্টক লিমিটেডের সঙ্গে চায়না কিংডম (China Kingdom) এবং ইউনাইটেড ফিনান্সিয়াল ট্রেডিং কোম্পানি লিমিটেডের সঙ্গে কুয়ান্ট ফিনটেক লিমিটেডের (Quant Fintech Limited) মধ্যে এপিআই ইউএটি চালুর একটি ত্রি-পাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

ট্রেডার বাংলাদেশ, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here