বীমা খাতের ২১ কোম্পানিকে সতর্ক করল আইডিআরএ

0
96

লাইফ ও নন-লাইফ বীমা খাতের ২১ কোম্পানিকে সতর্ক করেছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) । তিন দফা চিঠি দেয়ার পরও নির্ধারিত তথ্য না দেয়ায় বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) এসব কোম্পানিকে সতর্ক বার্তা পাঠিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএ।

আইডিআরএ’র পরিচালক মো. শাহ আলম বলেন, আগামী ২২ আগস্ট পর্যন্ত ৪টি লাইফ ও ১৭টি নন-লাইফ বীমা কোম্পানিকে সময় দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে তাদেরকে নির্ধারিত তথ্য পাঠাতে হবে। অন্যথায় পরবর্তী দুই কার্যদিবস সময় দিয়ে তাদেরকে শোকজ করা হবে।

এক্ষেত্রে বীমা আইনের ৪৯ ধারার বিধান মোতাবেক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এই আইনের বিধান অনুসারে তাদের বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত অর্থদণ্ড এবং উক্ত অপরাধ সংঘটন চলমান থাকলে প্রতিদিনের জন্য অতিরিক্ত ৫ হাজার টাকা করে অর্থ দণ্ডে দণ্ডিত করা যাবে।

এ সংক্রান্ত আইডিআরএ’র চিঠিতে বলা হয়েছে, আগামী সেপ্টেম্বরে বীমাকারীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক/ মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তাদের নিয়ে কর্তৃপক্ষের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হবে। ওই সভায় উপস্থাপনের জন্য এবং বীমা ব্যবসার দক্ষতা মূল্যায়ন ও বিশ্বব্যাংক প্রকল্পের চাহিদা অনুযায়ী তথ্য চাওয়া হয়।

এ বিষয়ে গত ৩০ জুন, ১২ জুলাই এবং ১৮ জুলাই বীমা উন্নয় ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক পত্র প্রেরণ করা হলেও নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ২১টি লাইফ ও নন-লাইফ বীমা কোম্পানি তথ্য প্রেরণ করেনি। যা বীমা আইনের ৪৯ ধারার বিধানের লঙ্ঘন। এই প্রেক্ষিতে কোম্পানিগুলোকে সতর্ক করা হয়েছে।

সতর্ক বার্তা প্রাপ্ত লাইফ ও নন-লাইফ বীমা কোম্পানিগুলো হলো- ডেল্টা লাইফ, পদ্মা ইসলামী লাইফ, প্রগ্রেসিভ লাইফ, সানফ্লাওয়ার লাইফ, অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, দেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি।

এ ছাড়াও গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, জনতা ইন্স্যুরেন্স, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স, ফিনিক্স ইন্স্যুরেন্স, পাওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স, পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স, সিকদার ইন্স্যুরেন্স, সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স এবং তাকাফুল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিকে সতর্ক করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here