বিদায়ী সপ্তাহে ৭ কোম্পানির দাপট

0
167

বিদায়ী সপ্তাহে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে দাপট দেখিয়েছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৭ কোম্পানি। এগুলো হলো- হামিদ ফেব্রিক্স, এশিয়া ইন্স্যুরেন্স, মালেক স্পিনিং, সোনালী পেপার, বে-লিজিং, ন্যাশনাল ফিড মিল এবং শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ। উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের সাপ্তাহিক গেইনার তালিকায় অবস্থান করছে এসব কোম্পানি। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, গত সপ্তাহে ডিএসইর সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার শীর্ষে অবস্থান হামিদ ফেব্রিক্স। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৬৬.৩০ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট ৩৭ কোটি ৮৯ লাখ ১ হাজার টাকা। দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ৭ কোটি ৫৭ লাখ ৮০ হাজার ২০০ টাকা।

গত সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটি সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৪২.২৮ শতাংশ। সপ্তাহের শুরুতে কোম্পানিটির দর ছিল ২০ টাকা ১০ পয়সা। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দাঁড়িয়েছে ২৮ টাকা ৬০ পয়সায়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির ৯ কোটি ২৫ লাখ ৯ হাজার ৮৭২ টাকার।

গত সপ্তাহে ডিএসইর সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ২ নম্বরে অবস্থান করছে এশিয়া ইন্স্যুরেন্স। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৩১.৭২ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট ৩৪ কোটি ১৪ লাখ ৭ হাজার টাকা। দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ৬ কোটি ৮২ লাখ ৮১ হাজার ৪০০ টাকা।

গত সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটি সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ২ নম্বরে অবস্থান করছে। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ২৯.২৪ শতাংশ। সপ্তাহের শুরুতে কোম্পানিটির দর ছিল ৭৯ টাকা। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দাঁড়িয়েছে ১০২ টাকা ১০ পয়সায়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির ২ কোটি ১৯ লাখ ৫৮ হাজার ৫০০ টাকার।

গত সপ্তাহে ডিএসইর সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৩ নম্বরে অবস্থান করছে মালেক স্পিনিং। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ২৩.৭৩ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট ৮৪ কোটি ৮ লাখ ২৮ হাজার টাকা। দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৮১ লাখ ৬৫ হাজার ৬০০ টাকা।

গত সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটি সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৪ নম্বরে অবস্থান করছে। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ২২.১০ শতাংশ। সপ্তাহের শুরুতে কোম্পানিটির দর ছিল ২৯ টাকা ৪০ পয়সা। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দাঁড়িয়েছে ৩৫ টাকা ৯০ পয়সায়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির ৪৬ লাখ ৬৬ হাজার ৭০০ টাকার।

গত সপ্তাহে ডিএসইর সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৪ নম্বরে অবস্থান করছে সোনালী পেপার। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ২৩.৩৯ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট ১১৪ কোটি ৫১ লাখ ৯১ হাজার টাকা। দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ৯০ লাখ ৩৮ হাজার ২০০ টাকা।

গত সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটি সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৩ নম্বরে অবস্থান করছে। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ২৩.০৯ শতাংশ। সপ্তাহের শুরুতে কোম্পানিটির দর ছিল ৫৫০ টাকা। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দাঁড়িয়েছে ৬৭৭ টাকা পয়সায়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির ১ কোটি ৩ লাখ ৪২ হাজার টাকার।

গত সপ্তাহে ডিএসইর সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৫ নম্বরে অবস্থান করছে বে-লিজিং। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ১৬.২৯ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট ১৬ কোটি ৫২ লাখ ৭০ হাজার টাকা। দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ৩ কোটি ৩০ লাখ ৫৪ হাজার টাকা।

গত সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটি সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৮ নম্বরে অবস্থান করছে। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ১৬.৩৭ শতাংশ। সপ্তাহের শুরুতে কোম্পানিটির দর ছিল ২৮ টাকা ১০ পয়সা। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দাঁড়িয়েছে ৩২ টাকা ৭০ পয়সায়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির ২৭ লাখ ৬৫ হাজার ৯০০ টাকার।

গত সপ্তাহে ডিএসইর সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৬ নম্বরে অবস্থান করছে ন্যাশনাল ফিড মিল। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ১৬.২৫ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট ১৬ কোটি ৯ লাখ ৭৯ হাজার টাকা। দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ৩ কোটি ২১ লাখ ৯৫ হাজার ৮০০ টাকা।

গত সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটি সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ১০ নম্বরে অবস্থান করছে। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ১৫.২৮ শতাংশ। সপ্তাহের শুরুতে কোম্পানিটির দর ছিল ২৪ টাকা ২০ পয়সা। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দাঁড়িয়েছে ২৭ টাকা ৯০ পয়সায়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির ৪২ লাখ ২৭ হাজার ৬০০ টাকার।

গত সপ্তাহে ডিএসইর সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৯ নম্বরে অবস্থান করছে শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ১৪.৫৭ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট ৩২ কোটি ২৫ লাখ ২ হাজার টাকা। দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ৬ কোটি ৪৫ লাখ ৪৮০০ টাকা।

গত সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটি সাপ্তাহিক গেইনার তালিকার ৯ নম্বরে অবস্থান করছে। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ১৬.৩৩ শতাংশ। সপ্তাহের শুরুতে কোম্পানিটির দর ছিল ৩০ টাকা। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দাঁড়িয়েছে ৩৪ টাকা ৯০ পয়সায়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির এক কোটি ৪৪ লাখ ২৫ হাজার ৪০০ টাকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here