নিম্নমুখি আট খাতের শেয়ার

0
177
7022

সোমবার সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস পুঁজিবাজার ইতিবাচক প্রবণতায় ফিরেছে। এদিন প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ১১ পয়েন্টের বেশি। পাশাপাশি লেনদেনও বেড়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূচকের ইতিবাচক প্রবণতায়ও আজ ডিএসইর ২০ খাতের মধ্যে আট খাতের শেয়ার দর ছিল নিম্নমুখ। খাতগুলো হলো- প্রকৌশল, বিবিধ, সেবা ও আবাসন, বস্ত্র, বিমা, ওষুধ ও রসায়ন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, খাদ্য ও আনুষঙ্গিক।

প্রকৌশল খাত : এখাতের ৪২টি কোম্পানির মধ্যে আজ দর কমেছে ৩৩টির বা ৭৮.৫৭ শতাংশ কোম্পানির। দর বেড়েছে ৮টির বা ১৯.০৮ শতাংশ কোম্পানির। দর অপরিবর্তিত ছিল ১টির বা ২.৩৮ শতাংশ কোম্পানির। খাতটিতে দর বেশি কমেছে বিডি থাইয়ের ৯.৪০ শতাংশ, বিবিএস ক্যাবলসের ৬.২৭ শতাংশ, বিবিএসের ৪.৫৯ শতাংশ, ইফাদ অটোসের ৪.০৭ শতাংশ, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ৩.৮১ শতাংশ, গোল্ডেনসনের ৩.৭৫ শতাংশ।

বিবিধ খাত : এখাতের ১৪টি কোম্পানির মধ্যে আজ দর কমেছে ১০টির বা ৭৬.৯২ শতাংশ কোম্পানির। দর বেড়েছে ৩টির বা ২৩.০৮ শতাংশ কোম্পানির। এখাতে দর বেশি কমেছে ন্যাশনাল ফিড মিলের ৯.৯১ শতাংশ শতাংশ, সাভার রিফ্যাক্টরিজের ৪.৭১ শতাংশ, এসকে ট্রিমসের ৩.৮৪ শতাংশ, আরামিট লিমিটেডের ৩.১১ শতাংশ, বেক্সিমকো লিমিটেডের ১.৮৩ শতাংশ।

বস্ত্র খাত : এখাতের লেনদেন হওয়া ৫৫টি কোম্পানির মধ্যে আজ দর কমেছে ৪১টির বা ৭৪.৫৪ শতাংশ কোম্পানির। দর বেড়েছে ৯টির বা ১৬.৩৬ শতাংশ কোম্পানির। দর অপরিবর্তিত ছিল ৫টির বা ৯.০৯ শতাংশ কোম্পানির। এখাতে দর বেশি কমেছে সায়হাম কটনের ৯.৫২ শতাংশ, আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের ৮.৬০ শতাংশ, ড্রাগন সোয়েটারের ৮.১৫ শতাংশ, ডেলটা স্পিনিংয়ের ৫.১০ শতাংশ, ফারইস্ট নিটিংয়ের ৫ শতাংশ, মালেক স্পিনিংয়ের ৪.৮৯ শতাংশ, সায়হাম টেক্সটাইলের ৪.৬৪ শতাংশ।

ওষুধ ও রসায়ন খাত : এখাতে লেনদেন হওয়া ৩০টি কোম্পানির মধ্যে আজ দর কমেছে ২১টির বা ৭০ শতাংশ কোম্পানির। দর বেড়েছে ৯টির বা ৩০ শতাংশ কোম্পানির। এখাতে দর বেশি কমেছে শতাংশ, কেয়া কসমেটিকসের ২.৬৩ শতাংশ, লিবরা ইনফিউশনের ২.৩৫ শতাংশ, ফার কেমিক্যালের ২.৩৪ শতাংশ, এএফসি এগ্রোর ২.২৫ শতাংশ।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত : এখাতের ২৩টি কোম্পানির মধ্যে আজ দর কমেছে ১৫টির বা ৬৫.২২ শতাংশ কোম্পানির। দর বেড়েছে ৭টির বা ৩০.৪৩ শতাংশ কোম্পানির। দর অপরিবর্তিত ছিল ১টির বা ৪.৩৫ শতাংশ কোম্পানির। এ খাতে দর বেশি কমেছে এসোসিয়েট অক্সিজেনের ৩.৩০ ইন্সুরেন্সের শতাংশ, খুলনা পাওয়ারের ৫.৮১ শতাংশ, জিবিবি পাওয়ারের ৪.৪৯ শতাংশ, লুবরেফের ২.৩৭ শতাংশ।

খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাত : এখাতের ২০টি কোম্পানির মধ্যে আজ দর কমেছে ১৩টির বা ৬৫ শতাংশ কোম্পানির। দর বেড়েছে ৬টির বা ৩০ শতাংশ কোম্পানির। দর অপরিবর্তিত ছিল ১টির বা ৫ শতাংশ কোম্পানির। এখাতে দর বেশি কমেছে ফু-ওয়াং ফুডের ৯.৩৭ শতাংশ, জেমিনি সী ফুডের ৮.৫৯ শতাংশ, মেঘনা পেটের ৭.৮৪ শতাংশ, মেঘনা কনডেন্সড মিল্কের ৭.৩১ শতাংশ।

এছাড়া, সিমেন্ট খাতে ৫৭.১৪ শতাংশ, আর্থিক খাতে ৫০ শতাংশ কোম্পানির দর পতন হয়েছে।

উপরন্তু ছোট খাতের টেলিকমিউনিকেশন, সিরামিক, ভ্রমণ ও আবাসন এবং পাট খাতের শতভাগ কোম্পানির দর কমেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here