বিনিয়োগ সীমার নিচের ব্যাংক-লিজিং বন্ডের অনুমোদন পাবে না

0
94

বিনিয়োগ সীমার অনেক নিচে বা তুলনামূলক সক্ষমতার কম পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করা ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পারপিচ্যুয়াল ও সাবঅর্ডিনেটেড বন্ডের অনুমোদনে ধীরগতি নীতি অনুসরন করবে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এমনকি রাইট ও বোনাস শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন না দেওয়ার বিষয়টি চিন্তা করছে কমিশন।

বর্তমানে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ি, ব্যাংক ও লিজিং কোম্পানিগুলো একক হিসাবে মূলধনের সর্বোচ্চ ২৫% ও সাবসিডিয়ারিসহ সমন্বিতভাবে ৫০% পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে। কিন্তু অনেক ব্যাংক ও লিজিং কোম্পানি এর ধারে কাছেও নেই। অথচ ওইসব প্রতিষ্ঠানগুলো শেয়ারবাজার থেকে নিয়মিত অর্থ উত্তোলন করে ব্যবসার পরিধি বাড়িয়ে থাকে।

এবার তাতে অনীহা প্রকাশ করতে যাচ্ছে বিএসইসি।

বিএসইসির একটি সূত্রে জানা গেছে, পুঁজিবাজার থেকে অর্থ নিয়ে ব্যাংক ও লিজিং কোম্পানিগুলো বড় হচ্ছে। কিন্তু পুঁজিবাজারে তাদের বিনিয়োগে অনীহা। তাই ওইসব প্রতিষ্ঠানের বন্ডেও অনীহা প্রকাশ করবে বিএসইসি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএসইসির নির্বাহি পরিচালক ও মূখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম বিজনেস আওয়ারকে বলেন, যেসব ব্যাংক ও লিজিং কোম্পানির পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ সীমার অনেক তলনাতি বা তুলনামূলক কম বিনিয়োগ, সেসব কোম্পানির পারপিচ্যুয়াল ও সাবঅর্ডিনেটেড বন্ডে অনুমোদনের ক্ষেত্রে ধীরগতি নীতি অনুসরন করা হবে। আর যেসব প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ সীমার কাছাকাছি বিনিয়োগ, সেগুলোকে সুপার ফার্স্ট (দ্রুত গতিতে) বন্ডের অনুমোদন দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here