‘কঠোর’ বিএসইসি, পিছু হটল ডিএসই

0
907
post

ডিএসই-মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে অ্যাপের জন্য মাসিক ফি না নেয়ায় সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) কর্তৃপক্ষ। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলামের নির্দেশের প্রেক্ষিতে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

সূত্রটি জানিয়েছে, সম্প্রতি ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয় আগামী জুলাই মাস থেকে ডিএসই-মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে মাসে ১০০ টাকা করে ফি নেয়া হবে। তবে গত বুধবার (১৬ জুন) বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলাম আপাতত এই ফি না নেয়ার জন্য বলেন। এর প্রেক্ষিতে ডিএসই কর্তৃপক্ষ ফি নেয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে।

এদিকে ডিএসই-মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে মাসে ১০০ টাকা করে ফি নেয়া হবে এমন সিদ্ধান্ত ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে বিনিয়োগকারীরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপে এর কঠোর সমালোচনা করা হয়।

বিনিয়োগকারীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ তোলা হয়, ডিএসই-মোবাইল অ্যাপে নানা রকম জটিলতা রয়েছে। অ্যাপ ব্যবহার করতে গিয়ে বিনিয়োগকারীরা নানা ধরনের সমস্যায় পড়ছেন। আবার দীর্ঘদিন ধরে মোবাইল অ্যাপের নতুন নিবন্ধন দেয়া বন্ধ রয়েছে। এসব সমস্যার সমাধান না করে ডিএসই চার্জ ধার্য করছে।

মো. আব্দুর রাজ্জাক নামে এক বিনিয়োগকারী বলেন, ডিএসইর মোবাইল অ্যাপ দিয়ে ঠিকমতো প্রবেশ করা যায় না। লেনদেনের ক্ষেত্রে জটিলতা দেখা দেয়। অ্যাপে নানা সমস্যা থাকলেও তার সমাধান না করে চার্জ আরোপের সিদ্ধান্ত বিনিয়োগকারীদের ওপর জুলুম।

মো. আব্দুর রাজ্জাকের মতো এমন অনেক বিনিয়োগকারী মোবাইল অ্যাপে চার্জ বসানোর বিরোধিতা করেন। তারা চার্জ না বসিয়ে আগে মোবাইল অ্যাপের সমস্যা সমাধানের দাবি জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে অ্যাপে নতুন নিবন্ধন দেয়ার দাবিও জানিয়েছেন।

ডিএসইর দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা বলেন, পরিচালনা পর্ষদ মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে মাসে ১০০ টাকা করে চার্জ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, যা আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর করার কথা ছিল। কিন্তু বিএসইসির চেয়ারম্যান এতে কিছুটা ক্ষুব্ধ হয়েছেন। তিনি কঠোরভাবে বলে দিয়েছেন এখন মোবাইল অ্যাপের জন্য কোন ধরনের চার্জ নেয়া যাবে না।

এদিকে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, বিএসইসি আইটিবান্ধব শেয়ারবাজার করতে চাচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে মোবাইল অ্যাপে চার্জ বসানো এক ধরনের প্রতিবন্ধকতা হিসেবে দেখছে বিএসইসি। এ কারণে বিনিয়োগকারীদের স্বার্থের কথা চিন্তা করে বিএসইসির চেয়ারম্যান মোবাইল অ্যাপে আপাতত চার্জ না নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

যোগাযোগ করা হলে বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, এখন মোবাইল অ্যাপে কোনো ধরনের চার্জ নেয়া যাবে না। বিনিয়োগকারীদের স্বার্থের কথা চিন্তা করে এ বিষয়ে ডিএসইকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা শেয়ারবাজারকে আইটিবান্ধব করতে চাচ্ছি। সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। ডিএসইর আইটিতে যত সমস্যা আছে, ছয় মাসের মধ্যে তার সমাধান করতেও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যদি ভবিষ্যতে আমরা বড় কিছু করতে পারি তখন মোবাইল অ্যাপে চার্জ নেয়া যায় কি-না ভেবে দেখা হবে। আপাতত মোবাইল অ্যাপে কোনো ধরনের চার্জ নেয়া যাবে না।

ডিএসইর পরিচালক মো. রকিবুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে মাসে ১০০ টাকা করে চার্জ নেয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। তবে আমরা আপাতত মোবাইল অ্যাপে চার্জ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারকারীদের আপাতত কোনো চার্জ দিতে হবে না।

এ সময় ফ্লোর প্রাইস (সর্বনিম্ন দাম) উঠিয়ে দেয়ার বিষয়েও কথা বলেন ডিএসইর এই পরিচালক। তিনি বলেন, ফ্লোর প্রাইস উঠিয়ে দিয়ে বিএসইসি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর মাধ্যমে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের চয়েস বাড়বে। এর ফলে লেনদেনের গতি যেমন বাড়বে, তেমনি বাজারেও ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here