ডিএসইর আরও তিন ব্রোকারেজের অনুমোদন দিয়েছে বিএসইসি

0
157
HTML tutorial

দেশের পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের‌ আরো নতুন ৩টি ব্রোকারেজ হাউজ বা ট্রেকের (ট্রেডিং রাইট এনটাইটেলমেন্ট সার্টিফিকেট) অনুমোদন দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

এর ফলে ডিএসইর নতুন ট্রেকের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৮টিতে। আর ডিএসইর সদস্যভুক্ত মোট ব্রোকারেজ হাউজ বা ট্রেকের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াবে ২৮৩টিতে।

নতুন অনুমোদন পাওয়া ব্রোকারেজ হাউজ তিনটি হলো- ফারিহা নিট টেক্স, এসকিউ ওয়্যার অ্যান্ড কেবল কোম্পানি এবং গিবসন সিকিউরিটিজ।

সম্প্রতি ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে নতুন ট্রেক অনুমোদন সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অফ ট্রেডিং রাইট এনটাইটেলমেন্ট সার্টিফিকেট) রেগুলেশন, ২০২০ এর রেগুলেশন ৩(১) (গ) এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (ট্রেডিং রাইট এনটাইটেলমেন্ট সার্টিফিকেট) রুলস, ২০২০ এর সাব-রুল ৩(১) ও (২) অনুযায়ী ডিএসই’র নতুন ট্রেক ইস্যু করা হয়েছে। এর পরিস্তিতিতে ডিএসই’র নতুন ট্রেকগুলোর আবেদন প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া এবং প্রাসঙ্গিক বিধি-বিধান মেনে চলা সাপেক্ষে অনুমোদিত হয়েছে৷

তথ্য মতে, পুঁজিবাজারের পরিধি বাড়াতে নতুন ট্রেক বাড়ানো সিদ্ধান্ত নেয় অধ্যাপক ড. শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের নেতৃতত্বাধীন কমিশন। এরই ধারাবাহিকতায় নতুন ট্রেক ইস্যুর বিষয়ে ২০২০ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর চুড়ান্ত অনুমোদন দেয় কমিশন।

পরবর্তীতে ২০২১ সালের ২ ফেব্রুয়ারি ৯৯০তম পরিচালনা পর্ষদের সভায় সংশ্লিষ্ট বিধিমালা পরিপালন ও যোগ্যতার ভিত্তিতে নতুন ট্রেক অনুমোদন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ডিএসই। এরপর ডিএসইর ওয়েবসাইট ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে নতুন ট্রেকের জন্য আবেদন জমা দেওয়ার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

ট্রেডার বাংলাদেশ, ০৮ জানুয়ারি, ২০২২

HTML tutorial

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here