বাজার মূলধন কমেছে আড়াই হাজার কোটি টাকা

0
96
HTML tutorial

বিদায়ী সপ্তাহটিতে শেয়ারবাজারের সব সূচক কমেছে। সূচকের সাথে টাকার পরিমাণে লেনদেন এবং অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। সপ্তাহটিতে পুঁজিবাজার থেকে হারিয়ে গেছে আড়াই হাজার কোটি টাকার বেশি বাজার মূলধন।

বিদায়ী সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৫ লাখ ২২ হাজার ৭৪৩ কোটি ৯৯ লাখ ২৩ হাজার ০৪৭ টাকায়।। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৫ লাখ ১৯ হাজার ৯১৪ কোটি ০৪ লাখ ৮৫ হাজার ০০৫ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন দুই হাজার ৮২৯ কোটি ৯৪ লাখ ৩৮ হাজার ০৪২ টাকা কমেছে।

বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৭ হাজার ৩০৬ কোটি ১৭ লাখ ৬৭ হাজার ১৬৪ টাকার লেনদেন হয়েছে। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১০ হাজার ১১০ কোটি ৩৯ লাখ ০৮ হাজার ৭৮৯ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেনে দুই হাজার ৮০৪ কোটি ২১ লাখ ৪১ হাজার ৬২৫ টাকা কমেছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫১.১১ পয়েন্ট বা ০.৭৮ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৫১২.৮৯ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১৭ পয়েন্ট বা ১.১৮ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৩৫.২৭ পয়েন্ট বা ১.৪৯ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৪১৯.৭৩ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৩৩০.৪২ পয়েন্টে।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৮৬টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৬১টির বা ১৫.৮০ শতাংশের, কমেছে ১৭৩টির বা ৪৪.৮২ শতাংশের এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫২টির বা ৩৯.৩৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৫৩৪ কোটি ১৬ লাখ ৭০ হাজার ৬৫৬ টাকার। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৪০৮ কোটি ৯২ লাখ ৩৬ হাজার ৬১৯ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ১২৫ কোটি ২৪ লাখ ৩৪ হাজার ০৩৮ টাকা বেড়েছে।

সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৫৫.৫৮ পয়েন্ট বা ০.৮০ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ১৮৯.২৮ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ৯৩.৬৯ পয়েন্ট বা ০.৮০ শতাংশ, সিএসই-৩০ সূচক ৩১.৯৫ পয়েন্ট বা ০.২৩ শতাংশ, ডিএসই-৫০ সূচক ২০.৭৬ পয়েন্ট বা ১.৪৭ শতাংশ এবং সিএসআই সূচক ১৪.৪০ পয়েন্ট বা ১.১৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১১ হাজার ৫০২.৩৫ পয়েন্টে, ১৩ হাজার ৪৭৩.২৭ পয়েন্টে, এক হাজার ৩৮৮.৫১ পয়েন্টে এবং এক হাজার ২৩৪.০৭ পয়েন্টে।

সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে ৩১৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৫৯টির বা ১৮.৬১ শতাংশের দর বেড়েছে, ১২৬টির বা ৩৯.৭৫ শতাংশের কমেছে এবং ১৩২টির বা ৪১.৬৪ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

ট্রেডার বাংলাদেশ, ০১ অক্টোবর, ২০২২

HTML tutorial

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here