সিনহাসহ ১০ ব্রোকারেজের ডিপি লাইসেন্স বাতিল হতে পারে !

0
143

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ১০ সদস্য দিচ্ছে না সিডিবিএলের তিন প্রকার ফি। তবে এই টাকা ইতোমধ্যে গ্রাহকদের কাছ থেকে কেটে নিয়েছে প্রতিষ্ঠানগুলো। তারা টাকা না দেওয়ার কারণে সরকারি ফি দিতে পারছে না সিডিবিএল। ফলে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কাছে অভিযোগ করেছে সিডিবিএল। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিকে প্রতিষ্ঠানগুলো বলছে, এগুলো অনেক আগে থেকেই বকেয়া পড়ে গেছে। ফলে এটি নিয়ে সিডিবিএলের সাথে চিঠি আদান প্রদান চলছে। আস্তে আস্তে এর সমাধান করা হবে। অন্যদিকে সিডিবিএলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বলেন, প্রতিষ্ঠানগুলো ফি না দিলে বিএসইসির সাথে আলোচনা করে ডিপি লাইসেন্স বাতিল করার মতো সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সংশ্লিষ্টদের বক্তব্য
ফি না দেওয়ার বিষয়ে এলিগ্যান্ট স্টক এ্যান্ড সিকিউরিটিজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা গাজী মোহাম্মদ তারেক সানবিডিকে বলেন, আমরা সিডিবিএলের টাকা পরিশোধ করছি। আমাদের কাছে অল্প কিছু টাকা পাবে। চলতি মাসেই বাকী টাকা সিডিবিএলকে দিয়ে দিবো।

এ বিষয়ে সিনহা সিকিউরিটিজের কর্মকর্তা মাহবুব সানবিডিকে বলেন, আমাদের কিছু টাকা সিডিবিএলে বকেয়া পড়ে গেছে। এ বিষয়ে চিঠি চালাচালি হচ্ছে। সমাধানের পথে এগুচ্ছি আমরা।

এ বিষয়ে সিডিবিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শুভ্র কান্তি সানবিডিকে বলেন,কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের কাছে ১০ কোটি টাকার মতো ফি বাকি আছে। যদিও ইতোমধ্যে তারা এই টাকা গ্রাহকদের কাছ থেকে নিয়ে গেছে। কিন্তু আমাদেরকে দিচ্ছে না। ফলে আমরাও সরকারি কোষাগারে টাকা দিতে পরছি না।

তিনি বলেন,বিষয়টি আমরা কমিশনকে জানিয়েছি। টাকা না দিলে কমিশনের সাথে আলোচনা করে ডিপি লাইসেন্স বাতিল করা হবে। ডিপি লাইসেন্স বাতিল হলে গ্রাহকরা অনেক ঝামেলায় পড়বে।

বিষয়টি নিয়ে বিএসইসির কমিশনার আব্দুল হালিম বলেন, এই জাতীয় একটি অভিযোগ কমিশনে করেছে সিডিবিএল। আশা করি সিডিবিএল ও কোম্পানিগুলো মিলে বিষয়টি সমাধান করবে।

কার কাছে কত টাকা বাকী
সিনহা সিকিউরিটিজ লিমিটেডের কাছে বাকীর পরিমান ৩ কোটি ৫ লাখ ৭৫ হাজার ৮৯৯ টাকা। এরমধ্যে সিডিএস বিল বাবদ ১ লাখ ৮৭ হাজার ৮৪৯ টাকা, বিও হিসাব খোলা বাবদ ৩ কোটি ৩ লাখ ৬০ হাজার নয়শত টাকা এবং বিও হিসাব নবায়ন বাবদ ২৭ হাজার ১৫০ টাকা।

এম সিকিউরিটিজ লিমিটেডের কাছে ৭২ লাখ ৮৭ হাজার ৪৯৮ টাকা। এরমধ্যে সিডিএস বিল ৬ লাখ ৭৫ হাজার ৬৯৮ টাকা, বিও হিসাব খোলা বাবদ ৫৪ লাখ ৪২ হাজার ৮৫০ টাকা এবং বিও হিসাব নবায়ন বাবদ ১১ লাখ ৬৮ হাজার ৯৫০ টাকা।

আইসিবি হেড অফিস’র কাছে ৬০ লাখ ৯০ হাজার ৬৮৭ টাকা। এরমধ্যে সিডিএস বিল ২২ হাজার ৩৭ টাকা, বিও হিসাব খোলা বাবদ ৬০ লাখ ৬৮ হাজার ৬৫০ টাকা।

রিলায়েন্স সিকিউরিটিজ কনসালটেন্ট লিমিটেডের ২৫ লাখ ৬২ হাজার ৩৭ টাকা। এরমধ্যে সিডিএস বিল ১৩ হাজার ৮৩৭ টাকা, বিও হিসাব খোলা বাবদ ২৫ লাখ ৩৯ হাজার ৮০০ টাকা এবং বিও হিসাব নবায়ন বাবদ ৮ হাজার ৪০০ টাকা।

করডিয়াল সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ২৩ লাখ ৯৭ হাজার ৫০০ টাকা। এর পুরোটাই বিও হিসাব খোলা বাবদ ।

প্যারম সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ১৬ লাখ ২৪ হাজার ৩৫১ টাকা। এরমধ্যে সিডিএস বিল ৯৫ হাজার ৯০১ টাকা, বিও হিসাব খোলা বাবদ ১৫ লাখ ৭ হাজার ৪৫০ টাকা এবং বিও হিসাব নবায়ন বাবদ ২১ হাজার টাকা।

আইসিবি চিটাগং শাখার ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৮৫০ টাকা। এর পুরোটাই বিও হিসাব খোলা বাবদ।

এ্যালকো সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ১৩ লাখ ৪০ হাজার ১৮৩ টাকা। এরমধ্যে সিডিএস বিল ১ লাখ ৩ হাজার ৭৮৩ টাকা, বিও হিসাব খোলা বাবদ ১০ লাখ ৭৫ হাজার ৫৫০ টাকা এবং বিও হিসাব নবায়ন বাবদ ১ লাখ ৬০ হাজার ৮৫০ টাকা।

হাওলাদার সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ১১ লাখ ২৪ হাজার ৭১৭ টাকা। এরমধ্যে সিডিএস বিল ১ লাখ ২৬৭ টাকা এবং বিও হিসাব খোলা বাবদ ১০ লাখ ২৪ হাজার ৪৫০ টাকা।

এলিগ্যান্ট স্টক এ্যান্ড সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ১১ লাখ ৪ হাজার ৭৫২ টাকা। এরমধ্যে সিডিএস বিল ৪৩ হাজার ২০২ টাকা, বিও হিসাব খোলা বাবদ ৯ লাখ ৭৫ হাজার ৪৫০ টাকা এবং বিও হিসাব নবায়ন বাবদ ৮৬ হাজার ১০০ টাকা।

ট্রেডার বাংলাদেশ, ১২ মার্চ, ২০২২

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here