পুঁজিবাজারে সূচকের বড় উত্থান

0
246

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে দেশের পুঁজিবাজারে বড় উত্থানে শেষ হয়েছে লেনদেন। আতঙ্কের ছাপ কাটিয়ে চাঙাভাবে ফিরেছে বিনিয়োগকারীরা।

রোববার (১৩ মার্চ) দেশের প্রধান পুঁজিবাজারে সূচকের বড় উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নেওয়া বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারদর বেড়েছে। আর লেনদেনও হয়েছে প্রায় হাজার কোটি টাকা।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, আজ এক্সচেঞ্জটির প্রধান সূচক ‘ডিএসইএক্স’ ৯৭ পয়েন্ট বেড়েছে।

এদিন প্রধান সূচকের সঙ্গে বেড়েছে ডিএসইর অপর দুই সূচকও। বাছাই করা কোম্পানিগুলোর সূচক ‘ডিএসই ৩০’ বেড়েছে ৩৮ পয়েন্ট। আর শরীয়াহ ভিত্তিক কোম্পানি নিয়ে গঠিত ‘ডিএসই এস’ বেড়েছে ১৭ পয়েন্ট।

রবিবার সূচকের বড় উত্থানে ভূমিকা ছিল গ্রামীনফোনের। কোম্পানিটির শেয়ারদর বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে ডিএসইর সূচকে আজ ১৩ দশমিক ৬২ পয়েন্ট যোগ হয়েছে।

ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো এবং লাফার্জ হোলসিম মিলে সূচকে যোগ করেছে আরও ১৩ দশমিক ৯৩ পয়েন্ট।

রবি, স্কয়ার ফার্মা, বেক্সিমকো, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি, বেক্সিমকো ফার্মা, সামিট পাওয়ার এবং বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানির কারণে সূচক পেয়েছে ২০ দশমিক ২৯ পয়েন্ট।

এই দশ কোম্পানির কারণে রবিবার ডিএসইর সূচকে মোট ৪৭ দশমিক ৮৪ পয়েন্ট যোগ হয়েছে।

সূচকের বড় লাফের দিন আরও বড় উত্থানে বাধা ছিল ওয়ালটন হাই-টেক। কোম্পানিটির কারণে ডিএসইর সূচক আজ ৩ দশমিক ০৬ পয়েন্ট।

লিন্ডেবিডি, রেকিট বেনকিজার, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ফরচুন সুজ, তমিজউদ্দিন টেক্সটাইল, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, ফারইস্ট লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং ব্যাংক এশিয়ার কারণে সূচক হারিয়েছে ৩ দশমিক ৩২ পয়েন্ট।

সব সূচকের উত্থান হলেও প্রধান শেয়ারবাজারে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কিছুটা কমেছে। রোববার ডিএসইতে টাকার অংকে ৯৯৮ কোটি ৭৩ লাখ ৬৯ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের কার্যদিবসে (বৃহস্পতিবার) লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৬১ কোটি ২০ লাখ টাকা।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে ৩৮০টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব কোম্পানির মধ্যে শেয়ারদর বেড়েছে ২৭৩টির, কমেছে ৮৭টির। বাকি ২০টি কোম্পানির শেয়ারদর আজ অপরিবর্তিত ছিল।

ট্রেডার বাংলাদেশ, ১৩ মার্চ, ২০২২

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here