শেয়ারবাজার দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের উৎস হতে পারছে না: ডিএসই চেয়ারম্যান

0
28
HTML tutorial

শেয়ারবাজার দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের উৎস হতে পারছে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) চেয়ারম্যান ইউনুসুর রহমান।

‘ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিংস (আইপিও): প্রসেসেস অ্যান্ড প্রসিডিউরস’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনকালে মঙ্গলবার তিনি এমন মন্তব্য করেন।

মার্চেন্ট ব্যাংক, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি ও ইস্যু ম্যানেজার কোম্পানির প্রতিনিধিদের জন্য দুদিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে ডিএসই ট্রেনিং একাডেমি।

ইউনুসুর রহমান বলেন, ‘শেয়ারবাজার দেশের শিল্পোন্নয়নের দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের প্রধান উৎস হওয়ার কথা থাকলেও সেই অবস্থানে যেতে পারছে না। এর অন্যতম একটি কারণ হলো, দেশে মূল অর্থায়ন হয় ব্যাংকের মাধ্যমে। ব্যাংক স্বল্প মেয়াদে আমানত সংগ্রহ করে শিল্প খাতে দীর্ঘমেয়াদে ঋণ দেয়। ফলে কিছু অমিল লক্ষ্য করা যায়।’

শেয়ারবাজারকে দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের মূল উৎসে পরিণত করাই লক্ষ্য জানিয়ে ডিএসই চেয়ারম্যান বলেন, ‘শেয়ারবাজারকে অর্থনীতির মূল উৎসে রূপান্তরের জন্য বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) অনেক পদক্ষেপ নিয়েছে। আমরাও বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাদেরকে সহযোগিতা করছি।’

শেয়ারবাজার দীর্ঘমেয়াদি পুঁজি উত্তোলনের নিরাপদ ও টেকসই উৎস হয়ে ওঠার জন্য আইপিও প্রক্রিয়া আরও স্বচ্ছ ও সুন্দর হওয়া জরুরি বলে মনে করেন ডিএসই চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, ‘ফাইনান্সিয়াল স্টেটমেন্টের ভিত্তিতে আইপিও নির্ধারিত হয়৷ কাজেই ফাইনান্সিয়াল স্টেটমেন্টগুলো যেন অধিকতর স্বচ্ছ হয়, সে বিষয়ে ফাইন্যান্সিয়াল রিপোর্টিং কাউন্সিল কাজ করছে৷ আগামী দিনগুলোতে চার্টার্ড একাউন্টিং ফার্মগুলো আরও আন্তরিকতার সঙ্গে বিষয়গুলো পরিচালনা করবে। তখন স্টেটমেন্টগুলোর সঠিকতা নিয়ে যে অভিযোগ রয়েছে তা দূরীভূত হবে।’

আইপিও প্রক্রিয়ার ভুল সংশোধনের ওপর গুরুত্বারোপ করে ইউনুসুর রহমান বলেন, ‘বিগত নয়-দশ বছরে দেশে শতাধিক কোম্পানির আইপিও এসেছে। এর অনেকগুলো বর্তমানে ফেসভ্যালুর নিচে অবস্থান করছে। এখানে যেসব ভুল-ভ্রান্তি রয়েছে তা নির্ধারণপূর্বক সংশোধনমূলক পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে সমস্যা উত্তরণের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে।’

প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ করে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ‘এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আপনারা আইপিওর প্রসেস ও প্রসিডিউর সম্পর্কে হাতে-কলমে শিখবেন। ব্যক্তি জীবনে কাজে লাগাবেন। আপনাদের অ্যাটিটিউড পজিটিভ হলেই দেশ উপকৃত হবে। শেয়ারবাজারকে দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের মূল উৎসে পরিণত করা সম্ভব হবে।’

অনুষ্ঠানে ডিএসইর ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সাইফুর রহমান মজুমদার বলেন, ‘আইপিও-র প্রসেস, প্রসিডিউর এবং বিধি ও প্রবিধান সবই জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত আছে। তারপরও এই প্রশিক্ষণের বিশেষত্ব হলো প্রশিক্ষক যারা রয়েছেন তাদের প্রয়োগিক অভিজ্ঞতা শেয়ার করার মাধ্যমে প্রশিক্ষণার্থীদের জ্ঞানভাণ্ডার সমৃদ্ধ করা৷’

আইপিও প্রসেসিং সম্পর্কে জানাশোনা কম থাকায় অনেক প্রতিষ্ঠান শেয়ারবাজারে আসতে পারছে না বলে মনে করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘দেশে অনেক করপোরেট হাউজ রয়েছে, যাদের আইপিওর মাধ্যমে তহবিল সংগ্রহের যথেষ্ট সুযোগ থাকা সত্ত্বেও আইপিও প্রসেসিং সম্পর্কে জানাশোনা কম থাকায় ধীরগতিতে এগুচ্ছে। এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সেই ঘাটতি পূরণ ও নলেজ লেভেল সমৃদ্ধ হবে।’

প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনীতে উপস্থিত ছিলেন ডিএসইর উপ-মহাব্যবস্থাপক ও ডিএসই ট্রেনিং একাডেমির প্রধান সৈয়দ আল আমিন রহমান এবং লঙ্কাবাংলা ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইফতেখার আলম।

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় পাবলিক অফারিংয়ের প্রয়োজনীয়তা, আইপিও ব্যবস্থাপনায় ইস্যু ম্যানেজার, আন্ডাররাইটার ও রেজিস্টারের ভূমিকা, ইলেক্ট্রনিক সাবসক্রিপশন সিস্টেম, আইপিওর আবেদন প্রক্রিয়া ও শেয়ার বরাদ্দ, ডিরেক্ট লিস্টিং ও পাবলিক অফারের ডকুমেন্ট প্রসপেক্টাসের অনুমোদন প্রক্রিয়া সম্পর্কে আলোচনা করা হয়।

ট্রেডার বাংলাদেশ, ০১ ডিসেম্বর, ২০২২

HTML tutorial

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here