অনিশ্চিত গন্তব্যে এসএমই মার্কেটের শেয়ার!

0
75

মূল মার্কেটে ক্রেতা না থাকলেও অনিশ্চিত গন্তব্যে ছুটছে এসএমই প্ল্যাটফর্মে লেনদেন হওয়া কোম্পানির শেয়ারের দর। প্রায় প্রতিদিনই ২০ শতাংশের কাছাকাছি বাড়ছে কয়েকটি কোম্পানির শেয়ারের দর। মাত্র ১২ কার্যদিবসে এই প্লাটফর্মের সূচক বেড়েছে ১৩৮ শতাংশ। এ সময়ে লাখ টাকার লেনদেন গড়িয়েছে ৩৩ কোটি টাকায়।

মাঝারি আকারের বিনিয়োগকারীদের জন্য লেনদেনের সুযোগ করে দেওয়ার পর থেকেই এসএমই প্ল্যাটফর্মের কোম্পানিগুলোর শেয়ার কেনার হুজুগ তৈরি হয়েছে। ফলে লেনদেন যেমন বাড়ছে, তেমনি প্রায় প্রতিদিনই কোম্পানিগুলোর শেয়ার সর্বোচ্চ দরে কেনাবেচা হচ্ছে।

অবশ্য মূলবাজারে ক্রেতা না থাকলেও ডিএসই এসএমই প্ল্যাটফর্মের কোম্পানির শেয়ার নিয়ে বিপুল আগ্রহ বিনিয়োগকারীদের। কোম্পানিগুলোর আর্থিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে স্বচ্ছ কোনো প্রতিবেদন না থাকলেও বিনিয়োগকারীরা এর শেয়ার ক্রয়ে হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন। ব্যক্তিশ্রেণির বিনিয়োগকারীদের পুঁজিবাজারের পোর্টফোলিও মূল্য ৫০ লাখ থেকে কমিয়ে ২০ লাখ টাকায় নামিয়ে আনার পর থেকেই এ প্ল্যাটফর্মের কোম্পানিগুলোতে ঝোঁক বাড়ছে।

গত দুই সপ্তাহে এ প্ল্যাটফর্মের কোম্পানিগুলোর শেয়ার দর ৭০ থেকে ১৭০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। গতকালও এ প্ল্যাটফর্মে তালিকাভুক্ত ১০ কোম্পানির মধ্যে ৯টির দরই ১৪ থেকে প্রায় ২০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। ফলে গতকাল এ প্ল্যাটফর্মের সূচকটি আগের দিনের চেয়ে ১৮ দশমিক ৩৪ শতাংশ বেড়ে ১৫৭৩ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে। যেখানে মূলবাজারের প্রায় ৭০ শতাংশ কোম্পানির দর কমেছে, সেখানে এসএমই প্ল্যাটফর্মে লেনদেন হওয়া শতভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর প্রায় সর্বোচ্চ হারে বেড়েছে।

মঙ্গলবার এসএমই প্ল্যাটফর্মের কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে নিয়ালকো অ্যালয়সের শেয়ারে। এ কোম্পানিতে লেনদেন হয়েছে ৫ কোটি ৭ লাখ টাকা। আর দর বেড়েছে ১৯ দশমিক ৯ শতাংশ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে মোস্তফা মেটাল ইন্ডাস্ট্রিজে, ৪ কোটি ৯ লাখ টাকা। শেয়ারটির দর বেড়েছে ১৯ দশমিক ৮ শতাংশ। মাস্টার ফিড অ্যাগ্রোটেকের দরও সর্বোচ্চ ১৯ দশমিক ৮ শতাংশ বেড়েছে, লেনদেন হয়েছে ৩ কোটি ৪২ লাখ টাকা। এছাড়া গতকাল এক দিনে সর্বোচ্চ ১৯ শতাংশে বেশি দর বেড়েছে ওরিজা অ্যাগ্রো, অ্যাপেক্স ওয়েভিং অ্যান্ড ফিনিশিং মিলস ও মামুন অ্যাগ্রো প্রডাক্টের শেয়ার দর। ওয়ান্ডারল্যান্ড টয়েস ও বেঙ্গল বিস্কুটসের দর বেড়েছে যথাক্রমে ১৮ ও ১৪ দশমিক ৫ শতাংশ।

ট্রেডার বাংলাদেশ, ০৬ এপ্রিল, ২০২২

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here