এক বছরে পুঁজিবাজার ছেড়েছেন পৌনে দুই লাখ বিওধারী

0
24
HTML tutorial

বিদায়ী বছর পতনের মধ্যে অতিবাহিত হয়েছে দেশের পুঁজিবাজার। বছরটিতে শেয়ারবাজারের সব সূচকই কমেছে। পতনের কারণে পুঁজিবাজারের প্রতি আগ্রহ হারিয়েছে বিনিয়োগকারীরা। এ কারণে বছরটিতে পুঁজিবাজার থেকে পৌনে দুই লাখ বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) হিসাব বন্ধ করে পুঁজিবাজার ছেড়েছেন বিনিয়োগকারীরা। সেন্ট্রাল ডিপজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেডের (সিডিবিএল) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, ২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস পুঁজিবাজারে বিও হিসাব ছিল ২০ লাখ ৩৪ হাজার ৩৯৯টি। আর বিদায়ী বছরে অর্থাৎ ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস বিও হিসাব দাঁড়ায় ১৮ লাখ ৬১ হাজার ৩০১টিতে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে এক লাখ ৭০ হাজার ০৯৮টি বিও হিসাব বন্ধ করেছে বিনিয়োগকারীরা।

২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস পুরুষদের বিও হিসাব ছিল ১৫ লাখ ১১ হাজার ৭৩৪টি। ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস পুরুষদের বিও হিসাব দাঁড়ায় ১৩ লাখ ৮৯ হাজার ৮৯০টিতে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে পুঁজিবাজার থেকে ১ লাখ ২১ হাজার ৮৪৪ পুরুষ বিওধারী তাদের হিসাব বন্ধ করেছে। ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস নারীদের বিও হিসাব দাঁড়ায় ৪ লাখ ৫৫ হাজার ০২৪টিতে। ২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস নারীদের বিও হিসাব ছিল ৫ লাখ ০৭ হাজার ৩১৫টিতে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে পুঁজিবাজার থেকে ৫২ হাজার ২৯১ নারী বিওধারী তাদের হিসাব বন্ধ করে পুঁজিবাজার থেকে বের হয়েছেন।

২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস কোম্পানি বিও হিসাব ছিল ১৫ হাজার ৩৫০টি। আর ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস কোম্পানি বিও হিসাব দাঁড়ায় ১৬ হাজার ৩৮৭টিতে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে কোম্পানি বিও হিসাব এক হাজার ৩৭টি বেড়েছে।

বিদায়ী বছর অর্থাৎ ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস দেশে অবস্থানকারী বিনিয়োগকারীদের এক লাখ ৫০ হাজার ৮৯১টি কমে দাঁড়ায় ১৭ লাখ ৮১ হাজার ৭৯৭টিতে। ২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস দেশি বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব ছিল ১৯ লাখ ৩২ হাজার ৬৮৮টিতে।

২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস বিদেশে অবস্থানকারী বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব ছিল ৮৬ হাজার ৩৬১টিতে। বিদায়ী বছর অর্থাৎ ২০২২ সালে বিদেশে অবস্থানকারী বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব ২৩ হাজার ২৪৪টি কমে দাঁড়ায় ৬৩ হাজার ১১৭টিতে।

ট্রেডার বাংলাদেশ, ০২ জানুয়ারি, ২০২৩

HTML tutorial

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here